Budget 2024: অপেক্ষার অবসান! দেশে লাগু হতে চলেছে অষ্টম বেতন কমিশন? বকেয়া ডিএ পাবেন কর্মীরা! মোট সাতটি দাবি জমা পড়লো সরকারের কাছে

সরকারি কর্মীদের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে গত কয়েক মাসে। তবে এবার সামনে আসন্ন বাজেট ২০২৪ (Budget 2024)। চলতি বছরের বাজেটে (Budget 2024) কেন্দ্রীয় সরকার বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বলে সূত্র মারফত খবর। সরকারি কর্মীরা হয়তো আরো বেশ কিছু সুবিধা পাবেন (Budget 2024)। সূত্রের খবর, চলতি বছরের বাজেটে (Budget 2024) অষ্টম বেতন কমিশন নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাতে পারে কেন্দ্র।

দেশে লাগু হতে পারে অষ্টম বেতন কমিশন। আর অষ্টম বেতন কমিশন লাগু হলে তা সরকারি কর্মীদের জন্য সোনায় সোহাগা (Budget 2024)। একদিকে যেমন তাঁদের বেতন বাড়বে, ঠিক একই রকম ভাবে সরকারি কর্মীরা বকেয়া ডিএ পাবেন। চলতি বছরের বাজেটে (Budget 2024) সরকার কি সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন, তার অপেক্ষায় সরকারি কর্মীরা। তবে ইতোমধ্যে মোট সাতটি দাবি জমা পড়ল সরকারের নিকট। দাবির তালিকায় কি কি রয়েছে? আসুন সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাক।

Duare Sarkar Camp 2024: বাংলায় শুরু হচ্ছে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প। কবে থেকে? নতুন কি সুবিধা মিলবে? বিস্তারিত জেনে নিন

Budget 2024

আর কিছুদিন পরেই বাজেট ২০২৪ (Budget 2024)। যার অপেক্ষায় প্রত্যেক ভারতবাসী ও সরকারি কর্মীরা। আর কিছুদিন পরেই অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন (Nirmala Sitharaman) সর্ব সমক্ষে বাজেট পেশ করবেন। আগামী 23 জুলাই কেন্দ্রীয় বাজেট 2024-25 (Budget 2024)। আর চলতি বছরের আসন্ন বাজেটের আগে নরেন্দ্র মোদি সরকারের কাছে বেশ কিছু দাবি রাখলো কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারী ইউনিয়ন।

এই দাবির তালিকায় আছে দেশে অষ্টম বেতন কমিশন (8th Pay Commission) গঠনের আর্জি। তবে বেতন কমিশন গঠন ছাড়াও আছে বকেয়া ডিএ দেওয়ার আবেদন ও অন্যান্য। কোভিড অতিমারি পরিস্থিতি চলাকালীন মোট ১৮ মাসের ডিএ বকেয়া (DA ) বাকি আছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের। বর্তমানে কর্মীদের আশা সরকার তাঁদের বকেয়া ডিএ (DA) মিটিয়ে দেবে।

লোকসভা ভোট ২০২৪- এরপর তৃতীয়বারের জন্য দেশের মসনদে বসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কেন্দ্রের সিংহাসনে নরেন্দ্র মোদি দায়িত্বে আসার পর থেকেই ভারতবাসীর প্রত্যাশা বেড়েছে। সকলে চাইছেন, দেশবাসীর জন্য সরকার প্রয়োজনীয় ও দেশবাসীর কল্যাণে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিক। জনসাধারণের প্রত্যাশা পূরণ করতে সত্যিই কি দ্রুত পদক্ষেপ নেবে কেন্দ্রীয় সরকার?

বাজেট নিয়ে আশায় বুক বেঁধেছেন আমজনতা। আশায় আছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরাও। তাই সরকারের নিকট সাতটি দাবি পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ইউনিয়ন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর তাঁর কর্মীদের জন্য বরাবরই উদার মানসিকতা দেখিয়েছেন। সদ্য মহার্ঘ ভাতা বেড়েছে তাঁদের। তাই সকলেই আশা করছেন, প্রধানমন্ত্রী নিশ্চয়ই আবেদন রাখবেন ও সরকারি কর্মীদের স্বার্থে অতি সত্বর পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

Ration Card Rule 2024 : রেশন কার্ডের নতুন নিয়ম জানেন? এই কাজটি না করলে বিপদে পড়বেন! বাতিল হতে পারে আপনার কার্ডটিও

সরকারের কাছে কোন কোন দাবী রাখা হয়েছে?

  • সরকারের কাছে আবেদন জমা পড়েছে, অষ্টম বেতন কমিশনের অবিলম্বে গঠনের জন্য।
  • আবেদন করা হলো নতুন পেনশন স্কিম (NPS) বাতিল করার জন্য। তার বদলে সমস্ত কর্মচারীদের জন্য দেশে চালু হোক পুরানো পেনশন স্কিম (OPS)।
  • সরকারের জানানো হলো, কোভিড অতিমারি চলাকালীন সরকারি কর্মী পেনশনভোগীদের যে ডিএ এবং ডিআর ফ্রিজ করা হয়েছিল, তা অতি শীঘ্রই রিলিজ করা।‌ এর পাশাপাশি, বর্তমানে ১৫ বছরের পরিবর্তে ১২ বছর পরে পেনশন প্রতিশ্রুতি অংশ দিয়ে দেওয়া।
  • এছাড়াও ‌আবেদন করা হলো কমপ্য়াশনেট অ্যাপয়েন্টমেন্টের ৫ শতাংশের সীমা উঠিয়ে দেওয়া এবং মৃত কর্মচারীর সমস্ত ওয়ার্ড/নির্ভরশীলদের ওই আওতায় নিয়োগ করা।
  • এই সাত দফা দাবির মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হলো সমস্ত বিভাগে সমস্ত ক্যাডারের সমস্ত শূন্য পদ পূরণ করা। এবং দেশের সরকারি বিভাগে আউটসোর্সিং ও ঠিকাদারীকরণ বন্ধ করা।
  • আবেদন হলো, JCM প্রক্রিয়ার বিধান অনুযায়ী অ্যাসোসিয়েশন/ফেডারেশনের ক্ষেত্রে গণতান্ত্রিক কার্যকারিতা নিশ্চিত করা।
  • এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য- (A) সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন/ফেডারেশনগুলিকে স্বীকৃতি প্রদান করতে হবে, এনএফপিই, পোস্টাল গ্রুপ সি ইউনিয়ন, এনএফপিই, ISROSA-এর ডি-স্বীকৃতি আদেশ প্রত্যাহার করতে হবে৷ (B) সরকার যেন পরিষেবা সমিতি/ফেডারেশনের উপর বিধি 15 1(c) আরোপ করা বন্ধ করে তার আবেদন করা হলো।
  • এর পাশাপাশি, চুক্তিভিত্তিক কর্মী , নৈমিত্তিক, ও জিডিএস কর্মীদের রেগুলার করতে হবে।‌ স্বায়ত্ত শাসিত সংস্থার কর্মচারীদের সিজি কর্মীর সমান মর্যাদা দিতে হবে। এর সঙ্গে এও বলা হয়েছে, ঠিক এই দাবিতে কনফেডারেশন আগামী ১৯ জুলাই বিক্ষোভ দেখাবে।