Antyodaya Anna Yojana – 1লা জানুয়ারি 2024 থেকে রেশনে আর মিলবে না অতিরিক্ত দ্রব্য!! কী বলছেন প্রধানমন্ত্রী?

দেশের সরকারের দায়িত্ব হল দেশের প্রতিটি মানুষের বেঁচে থাকার জন্য খাদ্যের চাহিদা মেটানো Antyodaya Anna Yojana সেই কাজ ই করছে। আর এই কথা মাথায় রেখে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে ভারতবর্ষে দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী জনসাধারণকে প্রতি মাসে ৩৫ কেজি করে খাদ্য সামগ্রী যোগান দেওয়া হয়। এই ৩৫ কেজি খাদ্য সামগ্রী কেন্দ্র সরকার বিনামূল্যেই বিতরণ করে। এবার বিনামূল্যে রেশন পাওয়ার নিয়মে আসছে বদল। আর এই নিয়ম কার্যকর হবে ১লা জানুয়ারি ২০২৪ সাল থেকে।

Antyodaya Anna Yojana

এই নিয়মে কি বলা আছে? কাদের কাদের জন্য এই নিয়মটি চালু হচ্ছে? সেই উত্তরগুলি জানতেই প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ পড়ুন। অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনা প্রকল্পটি (Antyodaya Anna Yojana Scheme) প্রথম শুরু হয় ২০০০ সালের ২৫ শে ডিসেম্বর। তবে এখন দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী প্রতিটি পরিবার বিনামূল্যে যে ৩৫ কেজি করে খাদ্য সামগ্রী পায় সেই প্রকল্পটি অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনার ২০১৩ সালের অংশবিশেষ।

অটল পেনশন যোজনায় আবেদন করলেই বয়সকাল হবে চিন্তা মুক্ত! দেশের সকল মানুষের জন্য। জেনে নিন বিস্তারিত।

এর পাশাপাশি করোনার সময় গোটা ভারতবর্ষ জুড়ে যখন লকডাউন শুরু হয় তখন কেন্দ্র সরকার প্রতিটি রেশন উপভোক্তাদের পাঁচ কেজি করে চাল দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। বিনামূল্যে পাঁচ কেজি করে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের ব্যবস্থাটি লকডাউনের সময় শুরু হলেও ধাপে ধাপে এর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। (Antyodaya Anna YojanaScheme)

এর আগে বলা হয়েছিল কেন্দ্র সরকার যে পাঁচ কেজি করে খাদ্যদ্রব্য বিনামূল্যে দিয়ে থাকে সেটি ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের পর থেকে বন্ধ হয়ে যাবে। ঠিক এই মুহূর্তে এক বড় ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে কেন্দ্র সরকার। এবার এই বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী ভারতবাসীরা পাবে আরও পাঁচ বছরের জন্য। আর এই নিয়ম কার্যকর হবে ২০২৪ সালের ১লা জানুয়ারি থেকে।

বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা এর আগে নরেন্দ্র মোদিকে এক জনসভায় বক্তৃতা দিতে গিয়ে বলতে শোনা গেছিল। তবে জনসভাতে বক্তৃতা দিতে গিয়ে মোদীজি এই কথাটি বললেও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সভাতে এই বিষয়ে কোনো উচ্চবাচ্য করেননি তিনি। তাই ভারতবাসীর মনে দ্বিধা তৈরি হয়েছিল যে এই প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানো আদেও হবে কিনা সেই নিয়ে।

বেকারদের জন্য 10 লাখ টাকা পর্যন্ত অর্থ দিচ্ছেন কেন্দ্রীয় সরকার।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার তরফ থেকেও এই বিষয়টি নিয়ে সম্মতি প্রকাশ করেছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ থাকুর জানিয়েছেন যে পাঁচ বছরের জন্য পাঁচ কেজি খাদ্য সামগ্রী বিনামূল্যে দেওয়ার প্রকল্পটি বৃদ্ধির ফলে কেন্দ্র সরকারের ১১.৮ লক্ষ কোটি টাকা খরচ হবে।

Leave a Comment