ডিসেম্বর থেকে বন্ধ পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের বিশেষ সুবিধা! সমস্যার মুখে গ্রাহকেরা। কী করা উচিত এখন?

দেশের দুই বৃহৎ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক ও SBI এর গ্রাহকরা বড় চমকের সম্মুখীন হতে চলেছেন বছরের শেষের দিকে এসে। তবে তাঁদের ভালই হবে এই চমকে। নিজস্ব গ্রাহকদের জন্য দুটি দুর্দান্ত সুযোগ নিয়ে হাজির হয়েছে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বা SBI এবং পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক বা PNB. এর ফলে বিপুলভাবে উপকৃত হতে চলেছেন দেশের এই দুই সরকারি ব্যাঙ্কের কোটি কোটি গ্রাহক। Reliance SBI Card গ্রাহকদের চমকে দিয়ে এনে দিয়েছে ক্রেডিট কার্ড। স্টেট ব্যাঙ্ক ও রিলায়েন্স এর জন্য বেঁধেছে গাঁটছড়া। গ্রাহকরা কেনাকাটার ক্ষেত্রে বিপুল ছাড় পাবেন Reliance SBI Credit Card-এর মাধ্যমে।

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক এর গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত!!

ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের জন্য SBI-এর দুর্দান্ত অফার সম্পর্কে জেনে নিন:
বিশেষত, এই ক্রেডিট কার্ডের সাহায্যে রিলায়েন্সের বিভিন্ন প্রোডাক্ট অনলাইন বা অফলাইন যেভাবেই আপনি কিনবেন তাতে ক্যাশব্যাক তো পাবেনই। পাশাপাশি পাবেন বিপুল ছাড়। দুটি ধরণের Reliance SBI Credit Card নিয়ে আসা হয়েছে।আপনি বছরে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কেনাকাটা করতে পারবেন Reliance SBI Card-এর মাধ্যমে। আর বছরে ৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত কেনাকাটা করতে পারবেন আপনি Reliance SBI Card Prime-এর মাধ্যমে। স্টেট ব্যাঙ্ক এবং রিলায়েন্স দুই সংস্থার তরফ থেকেই আশা প্রকাশ করে বল, দ্রুত এই কার্ড বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করবে দেশের মানুষের কাছে।

এবার আসি PNB ব্যাঙ্কের কথায়! কী পরিবর্তন হল PNB ব্যাঙ্কের?
পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক গ্রাহকদের মধ্যে জনপ্রিয় ও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ mPassbook অ্যাপ বন্ধ করে দিতে চলেছে আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে। পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের গ্রাহকরা এই mPassbook অ্যাপের সাহায্যে নিজেদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট যেকোনও সময় দেখতে পান। পাশাপাশি, লেনদেন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ডিজিটালি মুহূর্তের মধ্যে পেয়ে যানএখান থেকে ট্রানজাকশন হিস্ট্রি, মিনি স্টেটমেন্ট, এমনকি প্রয়োজন মনে করলে অ্যাকাউন্টের লেনদেনের PDF ফাইল ডাউনলোড করে নেওয়া যেত যে কোন‌ও সময়।

লাগবে টাকা দেবে রাজ্যে সরকার! ওয়েস্ট বেঙ্গল ভবিষ্যৎ ক্রেডিট কার্ড স্কিমের মাধ্যমে যুবক – যুবতীরা হয়ে উঠবেন স্বনির্ভর।

আর এটি PNB-এর mPassbook অ্যাপ থেকে করা হয়। কিন্তু ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ ‘এক্স’ হ্যান্ডেলে সেটাই বন্ধ করে দেওয়ার কথা জানিয়ে দিয়েছে ১ ডিসেম্বর থেকে। অবশ্য ইতিমধ্যেই পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ করে রেখেছে এর বিকল্প ব্যবস্থা। বর্তমানে ডিজিটাল লেনদেন সহ তাঁদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত যাবতীয় পরিষেবা PNB One অ্যাপের সাহায্যে সারতে পারছেন PNB-এর গ্রাহকরা। ইতিমধ্যে গ্রাহকদের জন্য mPassbook-এর সুবিধা দিয়ে দেওয়া হয়েছে এই অ্যাপের মধ্যেই।

অর্থাৎ গ্রাহকরা mPassbook-এর যাবতীয় পরিষেবা পেয়ে যাবেন এবার থেকে PNB One অ্যাপের মধ্যেই। ইতিমধ্যেই PNB-এর যে সকল গ্রাহক PNB One অ্যাপ ব্যবহার করেন তাঁদের বিভিন্ন প্রয়োজনে মিনি ট্রানজেকশন দেখাই হোক বা অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্টের পিডিএফ ডাউনলোড করাই হোক, এর জন্য কিছুই আর করতে হবে না আলাদা করে। তবে শুধুই mPassbook অ্যাপটি যে গ্রাহকরা ব্যবহার করতেন তাঁদের এবার নাম রেজিস্টার করে ফেলতে হবে PNB One অ্যাপ ডাউনলোড করে।

পোস্ট অফিস গ্রাহকদের দারুন সুখবর। এই স্কিমে একবার টাকা রেখে জীবনভর আনন্দে কাটান।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরেই অগাস্ট মাসে কেওয়াইসি জমা দিতে বলা হয়েছিল সমস্ত অ্যাকাউন্ট গ্রাহকদের। অল্প পরিমাণ হলেও লেনদেন রাখার উপদেশ দেওয়া হয়েছিল অ্যাকাউন্ট সক্রিয় রাখতে। কিন্তু যে সমস্ত গ্রাহকরা অ্যাকাউন্টটি পুরোপুরি ভাবেই ব্যবহার করেননি দীর্ঘ দু বছর ধরে, তাদের অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় হয়ে যাচ্ছে। সেভিংস, কারেন্ট দুই ধরনের অ্যাকাউন্টের জন্যই এই নিয়ম প্রযোজ্য রয়েছে।

Leave a Comment