Ration Dealers Strike – 1 জানুয়ারী থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ 20271 টি রেশন দোকান, নয়া আপডেট কি এল?

রেশন অনেক সাধারণ গরিব মানুষের মুখে দুই বেলা অন্নের যোগান দেয়। Ration Dealers Strike এর ফলে নাজেহাল বহু মানুষ। রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার মিলিত ভাবে এই ব্যবস্থা পরিচালনা করে থাকে। এর ফলে প্রতি মাসে গরিব মানুষদের বিনামূল্যে খাদ্য শস্য দেওয়া হয়। তবে এই রেশন বন্টন নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ কম নয়। এরই মাঝে নতুন বছরের শুরু থেকেই রেশন ডিলাররা মিলিত ভাবে রেশন ধর্মঘটের ডাক (Ration Dealers Strike) দিল। এর ফলে সমস্যায় পড়তে চলেছেন দেশের বহু গরিব মানুষ।

Ration Dealers Strike

অল ইন্ডিয়া ফেয়ার প্রাইস শপ ডিলারস ফেডারেশন রেশন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। আগামী ১লা জানুয়ারি থেকে দেশে জুড়ে রেশন ডিলাররা বন্ধ ঘোষণা করেছেন। জানুয়ারির শুরু থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ থাকবে রেশন দোকান। সারা দেশের প্রায় ৫ লক্ষ ৩৮ হাজার রেশন দোকান বন্ধ থাকবে। এ রাজ্যের ২০ হাজার ২৭১টি রেশন দোকান বন্ধ থাকবে।

বর্তমানে দেশের ৮১ কোটি ৩৫ লক্ষ গরিব মানুষ বিনামূল্যে রেশন পেয়ে থাকেন। এর মাধ্যমে প্রতি মাসে চাল ডাল গম সহ খাদ্য শস্য পেয়ে থাকেন সাধারণ মানুষ। তবে রেশন ধর্মঘটের কারণে বেশ সমস্যায় পড়তে চলেছে এই সমস্ত মানুষ। ধর্মধট সম্পর্কে রেশন ডিলার সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বম্ভর বসু বলেছেন, যতদিন না তাদের দাবি মানা হচ্ছে, ততদিন তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন এবং এর ফলে বন্ধ থাকবে রেশন দোকানও।

বেকারদের ছেলে-মেয়েদের কাজ দিচ্ছে রাজ্য সরকার! কীভাবে আবেদন করবেন? জেনে নিন।

আসলে দীর্ঘদিন ধরে কমিশন বৃদ্ধির দাবি করে আসছে রেশন ডিলাররা। বর্তমানে ১ কুইন্টাল পিছু ৯৫ টাকা করে পেয়ে থাকেন রেশন ডিলাররা। তবে বিভিন্ন কমিশনের রিপোর্ট ১ কুইন্টাল পিছু ৪৫৭ টাকা করার কথা বলা হলেও, তা করা হয়নি। এ নিয়ে ক্ষুব্ধ রেশন ডিলাররা সেই কারনে Ration Dealers Strike এর ডাক দেওয়া হল।

এদিকে গ্রাহকদের আইরিশ স্ক্যান থেকে শুরু করে রেশন তোলার সময় বায়োমেট্রিক যাচাইকে কেন্দ্র করে বার্তি চাপ নিতে হচ্ছে রেশন ডিলারদের। তবে সরকার তাদের কোনো কথাই শুনছে না। এদিকে FCI বস্তা পরিবর্তন করার দাবিও তুলেছে আন্দোলনকারীরা। তাদের দাবি FCI বস্তার পরিবর্তে চটের বস্তা দেওয়া হোক, কারণ FCI বস্তা করে চাল গম আসার সময় অনেকটাই নস্ট হয়।

রাজ্যের নতুন প্রকল্প। সিনিয়র সিটিজেনদের বিশাল সুবিধা দিচ্ছে রাজ্য সরকার!

যা রেশন ডিলাডের নিজের টেঁক থেকে খরচ করতে হয়। এ সমস্ত দাবি না মানা পর্যন্ত অনির্দিষ্ট কালের জন্য ধর্মঘট করবেন রেশন ডিলাররা। আজ কলকাতার খাদ্য ভবনে অভিযান চালাবেন রেশন ডিলাররা এবং আগামী মাসে সংসদ ভবন যাবেন। আগামী ১ তারিখ থেকে দেশের জুড়ে রেশন ধর্মঘট চলবে। ফলে মাথায় হাত সাধারণ মানুষের।

Leave a Comment