অটল পেনশন যোজনায় আবেদন করলেই বয়সকাল হবে চিন্তা মুক্ত! দেশের সকল মানুষের জন্য। জেনে নিন বিস্তারিত।

৬০ বছর বয়স ঊর্ধ্ব ভারতের নাগরিকদের সামাজিক নিরাপত্তা প্রদানের জন্য অটল পেনশন যোজনাটি ভারত সরকার চালু করে ২০১৫ সালে। পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এই স্কিমটি। আগে ‘স্বাবলম্বন পেনশন যোজনা’ (Atal Pension Yojana) নামে একটি পেনশন যোজনা ছিল কিন্তু সেটি সাধারণ জনগণের দ্বারা খুব কমই গৃহীত হয়েছিল এবং সেটিকে প্রতিস্থাপন করে এই অটল পেনশন যোজনা। এটি হল জাতীয় পেনশন স্কিমের একটি সম্প্রসারণ।

অটল পেনশন যোজনা

অটল পেনশন যোজনার (Atal Pension Yojana) প্রাথমিক উদ্দেশ্য হল যে কোনও ভারতীয় নাগরিককে তাদের বৃদ্ধ বয়সে হঠাৎ অসুস্থতা, দুর্ঘটনা বা দীর্ঘস্থায়ী রোগ নিয়ে যাতে উদ্বিগ্ন হতে না হয় তাদের সেই নিরাপত্তা প্রদান করা। এই যোজনা প্রধানত অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মী যেমন কৃষি কাজের সাথে যুক্ত শ্রমিক, চুক্তিবদ্ধ বা ক্ষুদ্র শিল্পের শ্রমিক অথবা বেসরকারী খাতে কর্মরত লোকেরা, যারা কর-দাতা নয় বা অন্য কোন সামাজিক নিরাপত্তা প্রকল্পেরও অংশ নন্‌ তাদের মধ্যে বাধ্যতামূলক সঞ্চয়ের অভ্যাস গড়ে তোলে, যা অবসর গ্রহণের পর পেনশনের মতই প্রতি মাসে নিশ্চিত অর্থ প্রদান করবে।

1) এই পেনশন যোজনায় বিনিয়োগ করে আপনি প্রতি মাসে ১,০০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫,০০০ টাকা পর্যন্ত একটি নির্দিষ্ট পেনশন পেতে পারেন৷
2) আমানতকারী ৬০ বছর বয়সে পেনশন পেতে শুরু করবেন।
3)অটল পেনশন যোজনায় বিনিয়োগের জন্য বয়স সীমা হোল ১৮ এবং ৪০ বছর পর্যন্ত।
আপনাকে সর্বনিম্ন ২০ বছর বিনিয়োগ করতে হবে।

অটল পেনশন যোজনায় (Atal Pension Yojana) সুবিধাভোগী ৬০ বছর বয়স অতিক্রম করলে মাসিক পেনশন পাওয়ার যোগ্য হবেন। যদি কোন কারণে গ্রাহক মারা যান, তাহলে গ্রাহকের পত্নীকে বা পতিকে পেনশনের পরিমাণ প্রদান করা হবে। তবে তিনি পেনশনের টাকার বদলে মোট অবদানের টাকা ও অর্জিত সুদ নিয়ে পেনশন যোজনা প্রত্যাহার করতে পারেন। যদি স্বামী-স্ত্রী উভয়েই মারা যান, তবে এমন পরিস্থিতিতে মনোনীত ব্যক্তিকে পেনশন তহবিল সর্বনিম্ন ₹১,৭০,০০০ থেকে সর্বাধিক ₹৮,৫০,০০০ দেওয়া হবে।

এম আই এস এ দারুন সুদ দিচ্ছে পোস্ট অফিস। একবার টাকা রেখে সারা জীবন আয়।

এই যোজনায় ৬০ বছর বয়সের আগে প্রত্যাহার সাধারন ভাবে অনুমোদিত নয়। তবে সুবিধাভোগীর মৃত্যু বা টার্মিনাল অসুস্থতা অর্থাৎ কোনো মৃত্যু শয্যার রোগ হলে গ্রাহক এই পেনশন যোজনা থেকে প্রস্থান করতে পারেন। সেক্ষেত্রে শুধুমাত্র সুবিধাভোগীর অবদান ও অর্জিত সুদের টাকা পাবেন এবং কোন রকম সরকারী অবদান থেকে তিনি বঞ্চিত থাকবেন।

কীভাবে আবেদন করতে হবে Swavalamban Pension Yojana? 
অনলাইনে বা ব্যাঙ্ক থেকে পাওয়া যায় অটল পেনশন যোজনার (Atal Pension Yojana) ফর্মগুলি৷ কিন্তু, এর জন্য অনলাইনে আবেদন করার সুবিধা বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে না। অতএব, ফর্মটি ডাউনলোড করার পরে, আপনাকে আবেদন করতে হবে শুধুমাত্র অফলাইন মোডে।আপনি যেকোনো সরকারি ব্যাঙ্কে গিয়ে স্কিমের জন্য আবেদন করতে পারেন, ফর্মটি পূরণ করার পরে। আধার কার্ডের একটি ফটোকপিও প্রদান করতে হবে আপনাকে। এর পরে, আবেদন অনুমোদনের বার্তা পাবেন আপনি আপনার ফোনে।

যোগ্যতা:
অটল পেনশন যোজনা প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে এবং পেনশন পেতে আপনাকে নিম্নলিখিত প্রয়োজনীয়তাগুলি পূরণ করতে হবে –
১. সুবিধেভোগীকে একজন ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।
২. বয়সসীমা ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে।

অল্প সময়েই টাকা ডবল! পোস্ট অফিসের এই দুর্দান্ত স্কিম সাড়া ফেলেছে সারা দেশে।

৩. ন্যূনতম ২০ বছরের জন্য স্কিমে অবদান রাখতে হবে।
৪. আমানতকারীর আধারের সাথে লিঙ্কযুক্ত একটি বৈধ সেভিংস অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে।
৫. একটি সক্রিয় মোবাইল নম্বর থাকতে হবে।
৬. আমানতকারী যেন আয়কর প্রদানের যোগ্য না হন।
৭. আমানতকারী অন্য কোন সামাজিক কল্যাণ প্রকল্পের সুবিধাভোগী হতে পারবেন না।

Leave a Comment