Car Loan: গাড়ি কেনার জন্য লোন নেবেন ভাবছেন? এই তথ্যগুলো জেনে সিদ্ধান্ত নিন

চার চাকার গাড়ি কেনার স্বপ্ন থাকে অধিকাংশ মানুষেরই। নিজের পরিশ্রমের ইনকাম দিয়ে একটু একটু করে জমিয়ে তা থেকে গাড়ি কেনার স্বপ্ন পূরণ করেন তাঁরা। কিন্তু একেবারে ক্যাশ টাকা দিয়ে গাড়ি কেনা কার্যত সমস্যার হয়ে পড়ে। তাই অনেকেই এখন লোন নিয়ে গাড়ি কিনছেন (Car Loan)। লোন নিয়ে গাড়ি কেনা অত্যন্ত স্বাভাবিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে বর্তমানে (Car Loan)।

শুধু গাড়ি কেনা নয়, বাড়ি কিংবা অন্যান্য সামগ্রী লোন নিয়ে কিংবা ইএমআইতে কিনছেন জনতা। এতে ধীরে ধীরে টাকা শোধ করার সুবিধা থাকছে, একইসঙ্গে নিজের স্বপ্নপূরণ করাও সম্ভব হচ্ছে। কিন্তু লোন (Car Loan) নিয়ে গাড়ি কেনার আগে কিছু বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। কি কি বিষয় খেয়াল রাখবেন? কোন কোন বিষয়গুলি অবশ্যই করতে হবে, লোন নিয়ে গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে (Car Loan) সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলির বিস্তারিত আলোচনা রইল আজকের প্রতিবেদন।

West Bengal: গাড়ি থাকলেই বাড়ল খরচ! বড় সিদ্ধান্ত রাজ্যের। প্রতিটি গাড়িতে বাধ্যতামূলক হল ধোঁয়া পরীক্ষা

Car Loan: গাড়ি কেনার জন্য লোন নেবেন?

বর্তমানে সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকগুলি গাড়ি কেনার জন্য লোন দিয়ে থাকে (Car Loan)। এই লোন শোধ করতে হয় নির্দিষ্ট সময় অনুসারে। ঋণ নিয়ে গাড়ি কিনছেন হাজার হাজার মানুষ। তাঁদের এরপর মাসিক কিস্তির মাধ্যমে সেই লোনের টাকা পরিশোধ করতে হয়। সরাসরি ক্যাশ না দিয়ে যদি আপনি লোন নিয়েই গাড়ি কেনেন, তাহলে সেটি আপনার জন্য ভালো হবে না মন্দ?

লোন নিয়ে গাড়ি কেনার আগে কিছু বিষয় আপনাদের মাথায় রাখতে হবে। আগেই জেনে নিতে হবে লোন নিয়ে গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে, অর্থাৎ বিকল্প অপশনে গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে বিষয়টি আদৌ সুবিধাজনক নাকি এর দ্বারা আপনি অসুবিধায় পড়তে পারেন? আর এই সমস্ত বিষয়ে আলোচনা করা হলো আজকের এই প্রতিবেদনে।

গাড়ির লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে ভাবনাচিন্তা করুন

মানুষ এখন হাঁটাচলা প্রায় ভুলেই গেছে। রাস্তায় মানুষের চাইতে গাড়ির সংখ্যা বেশি। বর্তমান যুগে গাড়ি প্রত্যেক মানুষের কাছেই অপরিহার্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। বছরের ছয়টি ঋতু গ্রীষ্ম হোক কি শীত অথবা বর্ষা, চার চাকার গাড়িতে বসে সহজেই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ভ্রমণ করা যায়। তবে শুধুমাত্র শখের কারণেই গাড়ি কেনা তা নয়।

Government Pension Scheme 2024: কোনো চাকরি না করেও ঘরে বসে পেনশন পাবেন। দুর্দান্ত সুযোগ দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন প্রকল্প

যত দিন যাচ্ছে এটি একটি কর্মসংস্থান ও ব্যবসার উৎস হিসেবে পরিণত হচ্ছে। ভাবতে হবে, গাড়ি মানুষের বিলাসবহুল পণ্য। তাই পছন্দসই গাড়ি কিনতে হলে মোটামুটি পকেট থেকে অতিরিক্ত টাকা খসবেই। চাহিদার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে গাড়িগুলির দামও বাড়াচ্ছে সংস্থা। আর সেই দাম দিয়ে গাড়ি কিনতে গিয়ে কালঘাম ছুটছে আমজনতার। তাহলে এখন উপায়? স্বপ্নকে বঞ্চিত করা নাকি?

মোটেই নয়। ‌কারণ হাতের কাছেই রয়েছে কার লোন। লোন নিয়ে গাড়ি কেনার চল যতদিন যাচ্ছে তত বাড়ছে। কিন্তু কার লোন নেওয়ার আগে কিছু বিষয়ে আপনাকে ভাবতেই হবে। না হলে সমস্যা কিন্তু আপনারই। বিচার বিবেচনা করে তবেই লোন নিন। ‌তাহলে কিন্তু আপনার আখেরে লাভ হবে।

গাড়ির লোন নেওয়ার সুবিধা

  • যদি আপনি গাড়ির লোন নেন, তাহলে আপনার বেশ কিছু সুবিধা হতে চলেছে। সুবিধাগুলি হলো কার লোনের মাধ্যমে, একজন ব্যক্তিই ধীরে ধীরে টাকা না জমিয়েও অবিলম্বে একটি গাড়ি কিনে ফেলতে পারেন, দীর্ঘদিন অপেক্ষা না করেই তার ইচ্ছে পূরণ হবে।
  • দ্বিতীয়ত, গাড়ির লোনের ক্ষেত্রে ডাউন পেমেন্ট হিসাবে গাড়ির দামের সামান্য অংশ পরিশোধ করে একজন ব্যক্তি লোন নিতে পারেন।
  • আবার কিছু ক্ষেত্রে, সেই গাড়ির লোনের ক্ষেত্রে সুদের পেমেন্টে ট্যাক্স সুবিধাও পেতে পারেন তিনি।
  • একজন ব্যক্তি গাড়ির লোন নিয়ে, অন্য কোনও উদ্দেশ্যে সেই টাকা বিনিয়োগ করতে পারেন।
  • তবে লোন নিয়ে গাড়ি কেনার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল কার লোনের ক্ষেত্রে নিজেদের সুবিধা অনুযায়ী সেই টাকা মাসিক কিস্তিতে (EMI) লোন পরিশোধ করা যায়।

গাড়ি লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে অসুবিধা

  • গাড়ি লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে সুবিধাগুলি আমরা জেনে নিয়েছি। এবার গাড়ির লোনের অসুবিধা গুলি জানতে হবে।
  • সাধারণত, যেকোনো লোনের ক্ষেত্রেই সুদ দিতে হয়। তাই আপনি আপনার প্রয়োজন সাপেক্ষে গাড়ির লোন নিতেই পারেন। কিন্তু এতে সুদের হার বেশি দিতে হয় বলে গাড়ির মোট খরচ বেড়ে যায়। লোনের ক্ষেত্রে আর্থিক বোঝা বাড়ে, ব্যক্তির আর্থিক অবনতিও হতে পারে।
  • আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গাড়ি লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে। তাই হলো- যদি আপনি লোন দেন এবং সময়মতো লোনের কিস্তি পরিশোধ না করেন তবে ব্যাঙ্ক আপনার ক্রয় করা গাড়িটি বাজেয়াপ্ত করতে পারে।
  • লোনের শর্ত বলে, একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য অর্থ জমা দিতেই হবে লোন গৃহীতাকে।

গাড়ির লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

গাড়ির লোন নেবেন বলে যদি আপনি ঠিক করে থাকেন, তাহলে অবশ্যই সমস্ত ব্যাংকের লোনের শর্ত এবং সুদের হার বিবেচনা করে নেবেন। ‌যেখান থেকে বেশি সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে সেখানেই লোন নিন। বিচার বিবেচনা ছাড়া লোন নেওয়া একেবারেই উচিত নয়।

আরো একটি বিষয় মনে রাখতে হবে, যারা গাড়ির লোনের টাকা দেয়, তারা সাধারণত গাড়ির রক্ষণাবেক্ষণ, বিমা এবং গতির জন্যও টাকা খরচ করে। তাই কার লোন নেওয়ার আগে আপনাকে অবশ্যি নিশ্চিত হতে হবে যে, উল্লিখিত এই সমস্ত খরচ বহন করা সম্ভব হচ্ছে কি না।