WBBSE Registration – আজই শেষ দিন মাধ্যমিক রেজিস্ট্রেশনের। আর করা যাবে না আবেদন।

এ বছর নবম শ্রেণী পাশ করে যারা দশম শ্রেণীতে উঠবেন, তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা জারি করলো মাধ্যমিক শিক্ষা পর্ষদ। নিয়ম অনুযায়ী (WBBSE Registration) নবম শ্রেণীতে পড়ার সময় মাধ্যমিক শিক্ষা পর্ষদের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে ফেলতে হয় প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের। প্রতি বছর রেজিস্ট্রেশন করার জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় দিয়ে থাকে পর্ষদ। কোনো ছাত্র-ছাত্র রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন না করলে কোনো ভাবেই বোর্ডের পরীক্ষায় বসতে পারবে না।

WBBSE Registration

চলতি বছরে নবম শ্রেণীতে পাঠরত শিক্ষার্থীদের গত ১৩ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে মাধ্যমিক শিক্ষা পর্ষদে নাম নতিভুক্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তবে এই তারিখের মধ্যেও অনেক ছাত্র-ছাত্রী রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে উঠতে পারেনি। সেই সব ছাত্রী-ছাত্রীদের জন্য আরো এক সুযোগ দিয়েছিল পর্ষদ। রেজিস্ট্রেশন করার সময় সীমা ৩১ শে ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছিল। যদিও এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের লেট ফি ফাইন দিতে হবে।

হাতে মাত্র আর একটি দিন। তারপরই রেজিস্ট্রেশন (WBBSE Registration) করার শেষ সীমা পার হবে। আর এই সীমা পার হলে, কোনো ভাবেই আর রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে না পড়ুয়ারা। যে কারণে পর্ষদ আরো একবার নির্দেশিকা জারি করে বাকিদের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছে। পর্ষদ স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, ৩১ শে ডিসেম্বরের পর আর কোনো ভাবেই রেজিস্ট্রেশন করা যাবে না।

জানুয়ারিতে “স্টুডেন্ট সপ্তাহ” পালনের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর! কী কী করা হবে?

এদিকে প্রত্যেক স্কুলের নবম শ্রেণীর সমস্ত ছাত্রী ছাত্রীরা রেজিস্ট্রেশন (WBBSE Registration) সম্পন্ন করেছে কিনা, তা স্কুল গুলির থেকে জানতে চায় পর্ষদ। এই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে স্কুলের প্রধান শিক্ষক বা শিক্ষিকার উপর। নবম শ্রেণীর সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছে কিনা তা আগামী বছরের ৩১ শে মার্চের মধ্যে পর্ষদকে জানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রধান শিক্ষককে নন জুডিশিয়াল ১০ টাকার স্ট্যাম্প পেপারে এই তথ্য লিখে পর্ষদের কাছে জমা করতে হবে। যদি কোনো স্কুল এ তথ্য পর্ষদের কাছে জমা না দেয়, তাহলে ওই স্কুলের পড়ুয়াদের সমস্যায় পড়তে হতে পারে। এদিকে ২০২৪-র মাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়েও বেশ কড়াকড়ি পর্ষদ। আগামী ২রা ফেব্রুয়ারী থেকে শুরু করে ১২ই ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত চলবে মাধ্যমিক পরীক্ষা।

আর এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষা (WBBSE Registration) যাতে সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন হয় সে জন্য এর আগে একাধিক নতুন নিয়ম তৈরী করেছে পর্ষদ। প্রতিবারের প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার যে অভিযোগ ওঠে, এবারে তা রুখতে তৎপর। তাই এবারের নিরাপত্তাও বেশ আঁটোসাঁটো। পরীক্ষা কেন্দ্রগুলি সিসিটিভি ক্যামেরারায় মোড়া থাকবে।

পশ্চিমবঙ্গ শিক্ষানীতি চালু। শিক্ষকদের গ্রামের স্কুলে পড়াতে হবে। ছাত্র ভর্তি, পরীক্ষা, সিলেবাসের বদল।

মাধ্যমিক পরীক্ষা কেন্দ্র লাগানো সিসিটিভি ক্যামেরা সংগ্রহ করে রাখার নির্দেশও দিয়েছে পর্ষদ। যতদিন না মাধ্যমিকের ফলাফল প্রকাশ পাচ্ছে, ততদিন সিসিটিভি ফুটেজ যত্ন সহকারে রাখার নির্দেশ দিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রের সুপারভাইজারদের চিঠি পাঠিয়েছে পর্ষদ। মাধ্যমিক পরীক্ষায় আরো স্বচ্চতা আনতে এহেন পদক্ষেপ নিয়েছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

Leave a Comment