রাজ্য সরকারের রুপশ্রী প্রকল্পে আবেদন করুন এবং ২৫ হাজার টাকা অনুদান পান

পশ্চিমবঙ্গের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাসকারী দরিদ্র পরিবারের মেয়েদের পড়াশোনা করানো থেকে শুরু করে বিয়ে দেওয়া পর্যন্ত সমস্তটাই যেন পরিবারের কাছে মস্ত এক দায়ভারের সামিল। আর তাই পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ জনগণ যত দ্রুত সম্ভব মেয়ের বিয়ে দিয়ে এই দায় থেকে মুক্ত হতে চায়। যার কারনে বাল্য বিবাহের সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। পশ্চিমবঙ্গের মেয়েদের উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করার জন্য এবং বাল্যবিবাহ বন্ধ করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে বিভিন্ন ধরনের প্রকল্প কার্যকর করা হয়েছে।

এখানেই শেষ নয়, মেয়েদের শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে যেতে সাহায্য করার পাশাপাশি যে সমস্ত দরিদ্র পরিবারগুলিতে মেয়ের বিয়ে দেওয়া এক কঠিন চ্যালেঞ্জের মনে করেন সেই সমস্ত পরিবারগুলি যাতে কোনরকম অসুবিধা ছাড়াই তাদের মেয়ের বিয়ে দিতে পারে তার জন্যই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে রূপশ্রী প্রকল্প কার্যকর করা হয়েছে। আজকের এই পোস্টে আমরা রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় কারা টাকা পেয়ে থাকে, কিভাবে রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানাতে হয়, আবেদনের ক্ষেত্রে কি কি নথি প্রয়োজন হয়ে থাকে তা নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি।

রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় কারা নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন?

১. রাজ্য সরকারের তরফে জারি করা তথ্য অনুসারে রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদনের ক্ষেত্রে পাত্রীর বয়স ১৮ বছর কিংবা তার থেকে বেশি হতে হবে এবং পাত্রের বয়স ২১ বছর কিংবা তার থেকে বেশি হতে হবে।
২. পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ীভাবে বসবাসকারী যুবতীরাই কেবলমাত্র এই প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানাতে পারবেন। যদি তা না হয় তবে পশ্চিমবঙ্গে ন্যূনতম ৫ বছর ধরে বসবাস করছেন এইরূপ প্রমাণপত্রের ভিত্তিতেও রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানানো যেতে পারে।
৩. রূপশ্রী প্রকল্পে আবেদনের ক্ষেত্রে আবেদনকারী যুবতীর পরিবারের বার্ষিক আয় ১.৫ লক্ষ টাকা বা তার থেকে কম হতে হবে।
৪. রুপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদনের ক্ষেত্রে আবেদনকারী যুবতীর নিজস্ব সিঙ্গেল ব্যাংক একাউন্ট থাকা আবশ্যক, কোনোরূপ জয়েন্ট একাউন্টের মাধ্যমে এই প্রকল্পের আওতায় নিজের নাম নথিভুক্ত করা যাবে না।

রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় কি কি সুবিধা পাওয়া যায়?

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত এই প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের দরিদ্র অসহায় শ্রেণীর যুবতীদের বিবাহের জন্য অর্থসাহায্য করা হয়ে থাকে। রূপশ্রী প্রকল্পের আওতাধীন সমস্ত যুবতীকে রাজ্য সরকারের তরফে বিবাহের জন্য ২৫ হাজার টাকার অনুদান দেওয়া হয়ে থাকে।

আরও পড়ুন:- হৃদরোগের ঝুকি থেকে সহজে মুক্তি পেতে চান। করুন এই কাজগুলি।

রুপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানাবেন কিভাবে?

রাজ্য সরকারের তরফে জারি করা তথ্য অনুসারে পশ্চিমবঙ্গবাসী যুবতীরা অফলাইন এবং অনলাইন উভয়ের মাধ্যমেই রূপশ্রী প্রকল্পের অধীনে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন। অফলাইনের মাধ্যমে আবেদনের ক্ষেত্রে আপনাকে গ্রাম পঞ্চায়েত অফিস, BDO অফিস, SDO অফিস থেকে রূপশ্রী প্রকল্পে আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ফর্মটি সংগ্রহ করতে হবে এবং তা সঠিকভাবে পূরণ করে প্রয়োজনীয় নথি সহকারে উক্ত অফিসে জমা দিতে হবে।

এছাড়াও আপনারা রাজ্য সরকারের তরফে কার্যকরী রূপশ্রী প্রকল্পের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://wbrupashree.gov.in/ -এ গিয়ে রূপশ্রী প্রকল্পের ফর্মটি ডাউনলোড করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে রূপশ্রী প্রকল্পের হোমপেজে থাকা Rupashree Online Application Form (Revised) – Download অপশনে ক্লিক করার মাধ্যমে ফর্মটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। এরপর এই ফর্মটিকে প্রিন্ট করে আপনার নাম, বয়স, ঠিকানা, পিন কোড, ব্যাংক একাউন্ট নম্বর, আইএফএসসি কোড সহ ব্যাংকের সমস্ত তথ্য, আধার নম্বর অথবা ভোটার নম্বর, কাস্ট, শিক্ষাগত যোগ্যতা সহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য তথ্যগুলি সঠিকভাবে পূরণ করে উল্লিখিত ডকুমেন্ট সহকারে উপরোক্ত অফিসগুলিতে জমা দেওয়ার মাধ্যমে আপনি এই প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানাতে পারবেন।

রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে আরো জানিয়ে রাখি যে, আপনারা দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পের মাধ্যমেও রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানাতে পারবেন। দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পের মাধ্যমে আবেদন জানানোর ক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমেই আপনার নিকটবর্তী দুয়ার সরকারের ক্যাম্প থেকে রুপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ফর্মটি সংগ্রহ করতে হবে। এরপর উক্ত ফর্মে উল্লিখিত সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করে প্রয়োজনীয় সমস্ত নথি ফর্মের সঙ্গে যুক্ত করে দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পে জমা করার মাধ্যমেও আপনারা রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানাতে পারবেন।

অন্যদিকে অনলাইনের মাধ্যমে আবেদনের ক্ষেত্রে আপনাকে রূপশ্রী প্রকল্পের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://wbrupashree.gov.in/ -এ যেতে হবে। এরপর হোম পেইজে থাকা Sign up অপশনে ক্লিক করুন এবং আপনার সামনে আসা রেজিস্ট্রেশনের ফর্মটিতে আপনার নাম, মোবাইল নম্বর, জেলা, আপনার পছন্দ অনুসারে user name এবং password সঠিক ভাবে লিখে Sign up অপশনে ক্লিক করুন। রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হলে আপনি পুনরায় হোম পেজে আসুন এবং user name ও password -এর মাধ্যমে Sign In -এর প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করুন। উপরোক্ত অপশনে ক্লিক করলেই আপনার সামনে রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ফর্মটি চলে আসবে। এই ফর্মে আপনার নাম, বয়স, ঠিকানা, পিন কোড, ব্যাংক একাউন্ট নম্বর, আইএফএসসি কোড সহ ব্যাংকের সমস্ত তথ্য, আধার নম্বর অথবা ভোটার নম্বর, কাস্ট, শিক্ষাগত যোগ্যতা সহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য তথ্যগুলি সঠিকভাবে পূরণ করুন এবং ফর্মে উল্লিখিত নথি আপলোড করে ফর্মটি সাবমিট করুন। তাহলেই অনলাইনের মাধ্যমে রূপশ্রী প্রকল্পের আওতায় আবেদন জানাতে পারবেন।

apply-for-rupashree-prakalpa

আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি:-

আবেদনকারী যুবতীর পরিবারের বাৎসরিক আয়ের শংসাপত্র।
আবেদনকারী যুবতীর বয়সের প্রমাণপত্র (ভোটার কার্ড/ প্যান কার্ড / আধার কার্ড/ বার্থ সার্টিফিকেট)
আবেদনকারীর ব্যাংক একাউন্টের সমস্ত তথ্য
পাত্র এবং পাত্রীর রঙিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি
পাত্রের বয়সের প্রমাণপত্র (ভোটার কার্ড/ প্যান কার্ড / আধার কার্ড/ বার্থ সার্টিফিকেট)
বিয়ের কার্ড
ম্যারেজ রেজিস্ট্রি সার্টিফিকেট